মাত্র ১৫ দিনে যেভাবে সংশোধন করা যাবে জাতীয় পরিচয়পত্র

0
292

নাগরিকদের সেবা দিতে ই-সিস্টেম সেবা চালু করেছে নির্বাচন কমিশন। এ সেবার আওতায় মাত্র ১৫ দিনে জাতীয় পরিচয়পত্র উত্তোলন, ঠিকানা স্থানান্তর সর্বোপরি সংশোধন করা যাবে।

সম্প্রতি জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগের ডিজি মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ‘হারানো কার্ড উত্তোলন ও ঠিকানা স্থানান্তর এবং ভুল সংশোধন করার ক্ষেত্রে মানুষের দুর্ভোগ কিভাবে কমানো যায়, সে লক্ষ্যে কার্ড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এ পদ্ধতি চালু করার পর আমূল পরিবর্তন আসবে। একটি জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনসহ সব প্রক্রিয়া সর্বোচ্চ ১৫ থেকে ৩০ দিন সময়ের মধ্যে শেষ করতে চিন্তাভাবনা করছি।’

এর কারণ উল্লেখ করতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘মূলত দুটি কারণে এই পদ্ধতিতে যাচ্ছি আমরা। এর একটি মানুষের সেবাটা তাদের দ্বার প্রাপ্তে পৌঁছে দেওয়া। অন্যটি যত দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজটি সম্পন্ন করা সম্ভব। এর মাধ্যমে মানুষের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসবে এবং তাদের ন্যায্য অধিকারটা সঠিক সময়ে পাবেন।

তিনি বলেন, দুর্ভোগের সঙ্গেই আমাদের সবকিছু সম্পৃক্ত। এমনকি কেউ যাতে কোনো অন্যায় কাজে জড়িত না হতে পারে-এ সফটওয়্যার কর্তৃপক্ষের জন্য সহায়ক হবে।

প্রার্থীতা ফিরে পেতে ইসিতে প্রথমদিনে আবেদন করলেন যারা
পাবনায় আ-লীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ : নিহত ২

ডিজি বলেন, আগে এই কাজটির জন্য কখনো ৪৫ দিন সময় লাগত, আবার ক্ষেত্র বিশেষে তিন মাসের বেশি সময় লাগত। এখন একই ধরনের সেবা পেতে গ্রাহকদের অপেক্ষা করতে হবে মাত্র ১৫ থেকে ৩০ কার্যদিবস। এ কাজটি যাতে যেকোনো মূল্যে করতে পারি, সেই প্রচেষ্টাই করা হচ্ছে।

কাজটির জন্য উপজেলা অফিসে ১০ দিন, জেলা ও আঞ্চলিক অফিসে তিন দিন করে ৬টি এবং এনআইডি উইংয়ে ১০ দিন এবং পাঠাতে ৪ দিনসহ মোট ৩০ দিন নির্ধারণ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, দেশে বর্তমানে ১০ কোটি ১৭ লাখ নাগরিক ভোটার পরিচয়পত্রের আওতায় এসেছেন। এসব নাগরিকদের মধ্যে অসংখ্য নাগরিকের পরিচয়পত্রে ভুল রয়েছে।

LEAVE A REPLY