মৌলভীবাজার পাসপোর্ট অফিসে সেবা নিশ্চিত করতে নতুন পদক্ষেপ 

0
2687
মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে সেবা নিশ্চিত করতে সহকারী পরিচালক শামীম আহমদ নতুন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। পাসপোর্ট অফিসের মূল ফটক থেকে শুরু করে সব জায়গায় লাগানো আছে একটি লিফলেট। এতে লেখা রয়েছে “অফিসের কেউ যদি আপনার নিকট অর্থ বা অবৈধ কিছু দাবী করলে সাথে সাথে সহকারী পরিচালককে অবহিত করুন”। নিচে লেখা রয়েছে সহকারী পরিচালকের রুম নম্বর ও মোবাইল নম্বর।
সহকারী পরিচালকের (এডি) রুমের দরজায় লিখা রয়েছে ” সহকারী পরিচালকের কক্ষে প্রবেশের কোন অনুমতির প্রয়োজন নেই। এই অফিস আপনাদের”।
অফিসের নোটিশ বোর্ডে পাসপোর্টের ফরম পূরণের নমুনা কপি ও নিয়মাবলী লাগানো হয়েছে। বাহিরের জেনারেটর রুমের দেয়ালে সিটিজেন চার্টার লাগানো হয়েছে। এতে পাসপোর্ট করতে করনীয় সব ধরনের তথ্য রয়েছে। ফরম পূরণের নিয়মাবলী, যে সমস্ত ব্যক্তিরা সত্যায়িত করতে পারবেন তাদের পদাবলি, কোন কোন ব্যাংকে কত টাকা জমা দিবেন  সেই তথ্যও দেয়া হয়েছে।
মৌলভীবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে একবার ঘোরে গেলে যে কেউ মাত্র ৩ হাজার ৪ শত পঞ্চাশ টাকায় সাধারণ পাসপোর্ট করতে পারবেন।
আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারি পরিচালক শামীম আহমদ বলেন যে কোন মানুষ এসে সঠিকভাবে যেনো তাদের কাজ করিয়ে নিতে পারে সেজন্য আমার রুম সবার জন্য উন্মুক্ত রেখেছি। এছাড়াও কেউ আমার স্টাফদের দ্বারা হয়রানির শিকার না হওয়ার জন্য অফিসের মূল ফটক থেকে শুরু করে সব জায়গায় সতর্কতা মূলক লিফলেট লাগিয়েছি।
পাসপোর্ট অফিস থেকে সেবা গ্রহণকারী কাজল মালাকার, আশরাফ সিদ্দিক, আবু বকর বলেন নিজেই ফরম পূরণ করে জমা দিয়ে এসএমএস পেয়ে পাসপোর্ট গ্রহণ করেছি।
অসচেতনতার কারণে গ্রামাঞ্চলের অনেক মানুষ এখনো পাসপোর্ট করার জন্য স্থানীয় বাজারের ট্রাভেল ব্যাবসায়ীদের নিকট যায়। ট্রাভেল ব্যবসায়ীরা প্রতিটি পাসপোর্ট থেকে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা নেয়। এতে মানুষ আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সহকারি পরিচালক শামীম আহমদের এমন উদ্যোগে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে এবং কোন হয়রানি ছাড়াই নিজের পাসপোর্ট নিজেই করতে পারবে বলে মনে করেন মৌলভীবাজার জেলার সচেতন মহল।

LEAVE A REPLY