প্রবাসী তৌফিকুর রহমান তাহের জিপি-৫  পাওয়া প্রীতিকে শিক্ষা বৃত্তি দিলেন

357
কুলাউড়া প্রতিনিধিঃ দারিদ্রতাকে পিছনে ফেলে রাউৎগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের মেধাবী ছাত্রী প্রীতি ঘোষ অর্জন করল এস এস সি পরিক্ষায় সকল বিষয়ে জিপি-৫ (গোল্ডেন এ প্লাস) তার এই সাফলতার ধারাবাহিতা বজায় রাখার জন্য এবং তাকে অনুপ্রেরণা যুগানোর জন্য রাউৎগাঁও এর কৃতি সন্তান কাতার প্রবাসী কুলাউড়ার সংলাপ পত্রিকার সাবেক ইউনিয়ন প্রতিনিধি, তালামীযে ইসলামিয়া রাউৎগাঁও ইউনিয়ন শাখার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও মানবতা ফাউন্ডেশন রাউৎগাঁও এর উপদেষ্টা মো: তৌফিকুর রহমান তাহের পক্ষ থেকে অদ্য ১৬ই জুন ২০২০ইং তাকে শিক্ষা বৃত্তি হিসেবে নগদ অর্থ ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান করা হয়।
এ সময় উপস্থিত থেকে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান করেন রাউৎগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক অংশুমান চৌধুরী (ঝিনুক)।
পূর্ব রাউৎগাঁও এর নিতাই ঘোষ এর তিন সন্তানের মধ্যে কনিষ্ঠ কন্যা প্রীতি এসময় প্রীতির বাবার সাথে কথা বলে জানা যায় উনার স্বপ্ন প্রীতিকে ভালো লেখা পড়ে করিয়ে বড় একজন ডাক্তার বানাবেন। যাতে করে ও গ্রামের দরিদ্রদের মধ্যে ফ্রি চিকিৎসা দিতে পারে। উনার সন্তানের ভালো ফলাফলের বিষয়ে জানতে চাইলে উনি বলেন এই রেজাল্ট হয়েছে একমাত্র উপরওয়ালার অশেষ কৃপায় এবং বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রচেষ্টায় উনি বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষকদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
প্রীতি ঘোষ এর অনুভূতি জানতে চাইলে সে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়ে, সে আমাদের কে জানায় এই রেজাল্টের পিছনে সবচেয়ে বেশি অবদান তার বাবা মায়ের কারণ তারা সব সময় আমার পাশে থেকে আমাকে সাপোর্ট দিয়েছেন আমার বাবা দারিদ্রতার দিকে না থাকি যখন যা প্রয়োজন তা দিয়েছেন। যাদের কথা না বললেই নয় আমার বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ যারা সর্বদা আমাকে কড়া নজরদারীর মধ্যে রেখে ভালো রেজাল্টের জন্য প্রস্তুত করেছেন আমি ধন্যবাদ জানাই আমার শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের প্রতি। এবং আজ যিনি আমাকে সংবর্ধিত করলেন তৌফিকুর রহমান তাহের ভাইয়ের প্রতি যিনি আমার এই রেজাল্টে আনন্দিত হয়ে আমাকে আজ এই উপহার প্রদান করলেন।
রাউৎগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক অংশুমান চৌধুরী (ঝিনুক) এর অনুভূতি জানতে গেলে উনি বলেন প্রীতির খুব ভালো নম্র ও ভদ্র ছাত্রী ছিল এবং লেখাপড়ায় খুব মনোযোগী ছিল আমরা থাকে নিয়ে আশাবাদী ছিলাম উপরওয়ালার অশেষ ইচ্চায় সে ভালো রেজাল্ট করেছে তার এই রেজাল্টে আমরা বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষকগন আনন্দিত আমি তার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি।
তৌফিকুর রহমান তাহের এর সাথে মুঠোফোনে কথা বললে উনি বলেন এই শিক্ষা বৃত্তির প্রদানের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে, আমি চেষ্টা করছি সমাজের হত দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পাশে দাড়ানোর। যাতে করা তারা এখান থেকে উৎসাহীত হয়ে আগামী দিনে আর ভালো রেজাল্টে করে দেশ ও জাতীর কর্ণধার হতে পারে। তাই আমি সমাজের সকল বৃত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানাই।